জুন ১৯, ২০২১
MIMS TV
কোভিড ১৯

সংক্রমণ নিয়েই আবারো নির্বাচনী সমাবেশ করবেন ট্রাম্প

আবারো নির্বাচনী প্রচারণার জন্য সমাবেশ শুরু করতে প্রস্তুত বলে ঘোষণা দিয়েছেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি জানান, তিনি এখন সম্পূর্ণ ভালো বোধ করছেন।

তবে ট্রাম্পের দাবি, তাঁর শরীরে আর করোনার সংক্রমণ নেই। বৃহস্পতিবার ফক্স নিউজকে দেওয়া টেলিফোন সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, তিনি ভালো বোধ করছেন। সত্যি অবস্থা ভালো। তিনি মনে করেন সম্পূর্ণ ভালো।

ওয়াশিংটনের একটি সামরিক হাসপাতালে তিন দিন চিকিৎসা শেষে হোয়াইট হাউসে ফেরার পর প্রথম কোনো সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প আরও বলেন, তাঁর অবস্থা এতোই ভালো যে আজ রাতেই একটি সমাবেশ করতে পারলে খুশি হবেন। সংক্রমিত করার ঝুঁকিতে আছেন বলে মনে করছেন না তিনি।

ট্রাম্প জানান, আমি আসলেই খুব ভালো বোধ করছি। শুক্রবার আবার তার কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হবে। আশা করি শনিবার সন্ধ্যায় একটি নির্বাচনী সমাবেশ আয়োজন করতে পারবো। সম্ভবত তা ফ্লোরিডায় অনুষ্ঠিত হবে।

নিজের দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠার বিষয়ে ফক্স নিউজকে তিনি আরো বলেন, আমার স্বাস্থ্য একদম ঠিক থাকায় আমি ফিরে এসেছি। কোভিড-১৯ আক্রান্ত হওয়ার পর ভাইরাস প্রতিরোধে আমাকে যেসব চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল তার বেশিরভাগই বন্ধ করা হয়েছে। তবে এখনো একাধিক স্টেরয়েড নিতে হচ্ছে।

এর আগে, বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের চিকিৎসা শেষ এবং এ সপ্তাহান্তেই জনসম্মুখে যেতে পারবেন বলে আশা করেন তার চিকিৎসক। হোয়াইট হাউজের চিকিৎসক ডা শন কনলি জানান, প্রেসিডেন্টের শরীর ওষুধ দারুণভাবে সাড়া দিয়েছে এবং তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল আছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক লিখিত বার্তায় ডা কনলি আরো বলেন, গেল বৃহস্পতিবার রোগ শনাক্তের পর আগামী শনিবার ১০ দিন হবে। যে দলটি প্রেসিডেন্টকে উন্নত চিকিৎসা দিচ্ছেন তাদের তথ্যের ভিত্তিতে তার পুরো বিশ্বাস, ওই সময়ের মধ্যে প্রেসিডেন্টের পুনরায় জনসম্মুখে যাওয়া সম্পূর্ণ নিরাপদ হবে।

ডা কনলি জানান, ট্রাম্পের শরীরে এখন রোগের কোনো উপসর্গ নেই।

এদিকে, মার্কিন রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র বলছে, উপসর্গ না থাকলেও অন্তত দশ দিন আক্রান্ত কোনো ব্যক্তিকে আইসোলেশনে থাকতে হবে। সুস্থও হলেও মাস্ক পরা, শারীরিক দূরত্ব বজায় ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মানা উচিত। কিন্তু ট্রাম্পের চিকিৎসকদের তথ্যমতে তিনি আক্রান্ত হন পয়লা অক্টোবর। সোমবারের আগে জনসম্মুখে আসা উচিত নয় তাঁর।

ট্রাম্প সবশেষ করোনা পরীক্ষায় কবে নেগেটিভ হয়েছেন সেই তথ্য হোয়াইট হাউস কাউকে জানাচ্ছে না। এতে বোঝা যাবে তিনি কবে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হোয়াইট হাউসের কৌশলগত যোগাযোগ বিভাগের পরিচালক আলিশা ফারাহ বলছেন, এসব ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসা সংক্রান্ত তথ্য।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, চার সপ্তাহও নেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের। ইতোমধ্যে ডাকযোগে ভোট দিয়েছেন আধা কোটির বেশি অ্যামেরিকান। এমন সময় তার মনযোগ নির্বাচনের দিকে ফেরাতে চাইছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ কারণেই আবারো নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর ওপর জোর দিচ্ছেন তিনি।

Related posts

ইউরোপে দ্বিতীয় সংক্রমণের মুখে কড়াকড়ি লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জিলিয়ান

ভ্যাকসিনের জন্য ১২০০ কোটি ডলার অনুমোদন বিশ্বব্যাংকের

admin

ইরান মানবদেহে করোনার টিকা পরীক্ষা শুরু করেছে

admin

Leave a Comment

Translate »