জুন ২২, ২০২১
MIMS TV
অপরাধ

মাগুরায় শিশুকে নৌকায় বেঁধে জীবন্ত ডুবিয়ে হত্যা

মাগুরায় ৮ম শ্রেণির এক ছাত্র তার বাবার অপমানের প্রতিশোধ নিতে মাহিদ নামে ৭ বছরের এক শিশুকে নৌকায় বেঁধে জীবন্ত ডুবিয়ে হত্যা করেছে। এমন খবর পেয়ে শনিবার থেকে পুলিশ নবগঙ্গা নদীতে ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

গত ৭ অক্টোবর সকালে মাগুরার সদর উপজেলার বারাশিয়া গ্রামের মজিরুল মোল্যার শিশু পুত্র মাহিদ নিখোঁজ হয়।

ওই দিনই শিশুটির বাবা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। কিন্তু পরদিন মোবাইল ফোনে ২০ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়। আর এই ফোনের সূত্র ধরে পুলিশ তদন্ত চালিয়ে ওই গ্রাম থেকেই অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া রোহান (১৪) নামে এক কিশোর এবং তার বাবা ইমরান আলি আসলামকে পুলিশ আটক করে। 

পরে কিশোর রোহান পুলিশের কাছে স্বীকার করে, সে হনুমান দেখতে যাওয়ার কথা বলে মাহিদকে বাড়ির সামনে থেকে নিয়ে যায়। কিন্তু তাকে নিয়ে যাওয়া হয় বাড়ির পাশে নবগঙ্গা নদীর ঘাটে।

সেখানে আগে থেকে ভিড়িয়ে রাখা একটি তালের ডোঙ্গা নৌকায় বেঁধে জীবন্ত অবস্থায় শিশুটিকে পানিতে ডুবিয়ে দেয়া হয়।

পুলিশের হাতে আটক রোহান নিখোঁজ শিশুটির প্রতিবেশী। কিছুদিন আগে রোহানের বাবাকে শিশু মাহিদের বাবা অপমান করায় তার প্রতিশোধ নিতে সে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে বলে সে পুলিশকে জানিয়েছে। তবে তাদের মধ্যে পুরনো কোনো শত্রুতা নেই বলে জানিয়েছেন নিখোঁজ মাহিদের চাচা নিরো মোল্যা। 

মাগুরা সদর থানার এসআই আলমগির হোসেন জানান, থানায় মামলা হয়নি।

কেবল জিডির প্রেক্ষিতেই তদন্ত চলছে। আটক রোহানের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত নদীতে তল্লাশি চালানোর পরও লাশ উদ্ধার করতে পারেনি ডুবুরি দল। আজ রবিবার ডুবুরিদের মাধ্যমে সকাল থেকে তল্লাশি কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

Related posts

শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে ভারতীয় মাছসহ ট্রাক জব্দ

Irani Biswash

সরকারী টাকায় সকালের নাস্তা, বিপাকে সানা মেরিন

Irani Biswash

কানাডায় পরিত্যক্ত আবাসিক স্কুল থেকে বাচ্চাদের দেহাবশেষ উদ্ধার

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »