জুন ১৯, ২০২১
MIMS TV
আন্তর্জাতিক যুক্তরাষ্ট্র

জিল বাইডেন, সর্বোচ্চ শিক্ষিত ফার্স্ট লেডি

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে এবার আরও অনেক কিছুর মতো নতুন ইতিহাস তৈরি করতে যাচ্ছেন জিল বাইডেন। তিনি হোয়াইট হাউজে আসা প্রথম ফার্স্ট লেডি হতে যাচ্ছেন যিনি একজন চাকরিজীবী। সেটি অবশ্যই শিক্ষকতা। ডক্টরেট ডিগ্রিধারী এই নারী যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে শিক্ষিত ফার্স্ট লেডি। এর আগের যারা ফার্স্ট লেডি ছিলেন তাদের শিক্ষার দৌড় এত উঁচুতে ছিল না।

নির্বাচনী প্রচারণার সময় তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, নর্দার্ন ভার্জিনিয়ার একটি কম্যুনিটি কলেজের ইংরেজির অধ্যাপক হিসেবে তিনি তার শিক্ষকতা পেশা ধরে রাখবেন। সেখানে তাকে একজন কঠোর শিক্ষক হিসেবেই জানেন তার ছাত্র-ছাত্রীরা।

সিবিএস টেলিভিশনকে গত অগাস্ট মাসে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ, আমি চাই মানুষ শিক্ষকদের মূল্যায়ন করুক এবং তাদের অবদান সম্পর্কে জানুন, তাদের মর্যাদা দিক।’

ডক্টরেট ডিগ্রি থাকায় তিনি হচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের ২৩১ বছরের ইতিহাসে প্রেসিডেন্টের প্রথম সর্বোচ্চ শিক্ষিত অর্ধাঙ্গিনী। ইউনিভার্সিটি অব ডেলাওয়ার থেকে ২০০৭ সালে তিনি ডক্টরেট ডিগ্রি নিয়েছেন। এরপর থেকে তিনি কম্যুনিটি কলেজগুলোয় শিক্ষার্থীদের ধরে রাখার বিষয়ে মনোযোগ দেন। পুরো জীবন ধরে শিক্ষকতা করে আসা জিল বাইডেনের দুইটি মাস্টার্স ডিগ্রি রয়েছে। ইংরেজি ও পড়াশোনার ওপরে।

অধ্যাপক জিল বাইডেনের আরেকটি পরিচয় রয়েছে। তিনি তার স্বামীর একজন রক্ষক। সমাবেশে বাধা সৃষ্টিকারীদের ঠেকানো এবং বাইরে বের করে দেয়ার কাজে স্বেচ্ছাসেবীদের তিনি সহায়তা করেছেন।

হোয়াইট হাউজে অধ্যাপক জিল বাইডেনের এবারই প্রথম আসা হচ্ছে না। কারণ বারাক ওবামার পুরো মেয়াদ জুড়ে তিনি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সেকেন্ড লেডি। সেই সময়েও তিনি তাঁর শিক্ষকতা পেশা অব্যাহত রেখেছিলেন।

সেকেন্ড লেডি হওয়ার পর সর্বশেষ যিনি ফার্স্ট লেডি হয়েছিলেন, তিনি ছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশের স্ত্রী বারবারা বুশ, ১৯৮৯-১৯৯৩ সালে।

Related posts

ক্যালগেরীতে রমজানের প্রথম ইফতার ও স্মৃতি কথা

admin

কঙ্গোতে জাতিসংঘের গাড়ি বহরে হামলায় ইতালির রাষ্ট্রদূতসহ তিনজন নিহত

admin

ট্রাম্পকে “বিদায় ঘণ্টার” প্রস্তুতি নিতে বললেন ওবামা

শাহাদাৎ আশরাফ

Leave a Comment

Translate »