জুন ২২, ২০২১
MIMS TV
আন্তর্জাতিক

আগ্নেয়গিরির লাভায় পাথরে পরিণত মানুষ

এক সময় পৃথিবীর অন্যতম অভিজাত জনপদ ছিল প্রাচীন ইতালির পম্পেই নগরী। ভয়াবহ আগ্নেয়গিরির লাভার নিচে জীবন্ত কবর হয়েছিল পম্পেইর। সেটি প্রায় দুই হাজার বছর আগের ঘটনা। প্রত্নতাত্ত্বিকেরা সেসময়ের দুইটি মরদেহ উদ্ধার করেছেন।

৭৯ খ্রিষ্টাব্দে ভিসুভিয়াস পর্বতের আগ্নেয়গিরির দুই দিনব্যাপী সর্বনাশা অগ্ন্যুৎপাতে পম্পেই নগরী সম্পূর্ণভাবে পুড়ে ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। ৬০ ফুট উঁচু ছাই এবং ঝামা পাথর এর নিচে শহরটি চাপা পড়ে যায়।

ইতালির নেপলসের ২৩ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে অবস্থিত পরিকল্পিত শহরটিতে বাস ছিল ১৩ হাজার মানুষের। আগ্নেয়গিরির জ্বলন্ত লাভার নিচে চিরতরে হারিয়ে গিয়েছিলেন তারা। বিবিসি জানায়, প্রত্নতাত্ত্বিকেরা সেসময়ের দুই ব্যক্তির মরদেহের সন্ধান পেয়েছেন। পম্পেই নগরীর ধ্বংসস্তূপের মধ্যে এতদিন ধরে সংরক্ষিত ছিল মরদেহ দুইটি।

Related posts

জামিন পেয়েছেন পরিবেশ কর্মী দিশা রাভি

admin

বঙ্গবন্ধুর প্রশংসা করলেন বান কি মুন

admin

নিজেকে নির্দোষ দাবি দুর্নীতির অপরাধে বিচারের মুখোমুখি ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীর

admin

Leave a Comment

Translate »