জুন ১৯, ২০২১
MIMS TV
আন্তর্জাতিক কোভিড ১৯

করোনায় বিশ্বজুড়ে হতদরিদ্র বেড়েছে ৪০ শতাংশ

মহামারি করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ে বিশ্বজুড়ে হতদরিদ্র মানুষের সংখ্যা ৪০ শতাংশ বেড়ে গেছে। এই বিপুল সংখ্যক মানুষের মানবিক সাহায্যেরও প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের ত্রাণ বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা মার্ক লোকক।

১ ডিসেম্বর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের একটি প্রতিবেদনে এমনই তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, এই সাহায্য আগামী বছর থেকেই প্রয়োজন পড়বে আর এ জন্য জাতিসংঘ ৩ হাজার ৫শ’ কোটি মার্কিন ডলার চেয়েছে।

জাতিসংঘের ত্রাণ বিষয়ক প্রধান কর্মকর্তা বলেন, ‘আগামী বছর যাদের মানবিক সাহায্যের প্রয়োজন পড়বে তারা সবাই যদি একটি দেশে বাস করতেন তাহলে সেটি বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম জনগোষ্ঠীর দেশ হতো। এই মহামারি বিশ্বের সবচেয়ে ভঙ্গুর ও সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অর্থনীতির দেশগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে।’

মার্ক লোকক বলেন, আমরা সবসময়ই হতদরিদ্র মানুষদের দুই-তৃতীয়াংশের কাছে পৌঁছাতে চাই। বাকি যারা থেকে যাচ্ছে তাদের রেড ক্রসের মত অন্যান্য দাতব্য সংস্থা সহায়তার চেষ্টা করবে, যাতে সেই শূন্যতা পূরণ করা যায়।’

মার্ক লোকক জানান, চলতি বছর দাতা দেশগুলো রেকর্ড ১ হাজার ৭শ’ কোটি মার্কিন ডলার দান করেছে। যা দিয়ে নির্ধারিত লক্ষ্যের প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষের কাছে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে।

এ বিষয়ে মার্ক লোকক বলেন, ‘২০২১ সালের জন্য আমাদের ৩ হাজার ৫শ’ কোটি (৩৫ বিলিয়ন) ডলার প্রায়োজন। যা একটি বিশাল অংকের অর্থ। কিন্তু ধনী দেশগুলো তাদের জনগণকে মহামারি থেকে সুরক্ষা দিতে যে পরিমাণ ব্যয় করছে তার তুলনায় এই অর্থ খুবই সামান্য।’

উল্লেখ্য, ২০২১ সালে জাতিসংঘ ৫৬টি দেশে মানবিক ত্রাণ পৌঁছে দিতে ৩৪টি পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। সংস্থাটি এর মাধ্যমে ১৬ কোটি মানুষের কাছে মানবিক সহায়তা পৌঁছে দিতে চায়।

এর বাইরেও আরও অনেক মানুষের সহায়তা প্রয়োজন। জাতিসংঘের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বে প্রায় সাড়ে ২৩ কোটি মানুষকে ক্ষুধা, যুদ্ধ, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব এবং করোনাভাইরাস মহামারির প্রভাব মোকাবেলা করতে হচ্ছে।

Related posts

বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রের গণ উৎপাদন শুরু করলো ইরান

admin

পরিচয় গোপন রেখে অভিযোগ করতে পারবে মালয়েশিয়ায় কর্মরত শ্রমিকরা

Irani Biswash

মালয়েশিয়ার খ্রিস্টানরা ‘আল্লাহ’ শব্দ ব্যবহার করতে পারবে

admin

Leave a Comment

Translate »