অগাস্ট ১, ২০২১
MIMS TV
এই মাত্র পাওয়া প্রিয় লেখক ব্রেকিং নিউজ মু: মাহবুবুর রহমান যুক্তরাষ্ট্র

স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হলো ট্রাম্পের টুইটার একাউন্ট

মু: মাহবুবুর রহমান

ওয়াশিংটন ডিসির ক্যাপিটল ভবনে ট্রাম্প ভক্তদের হামলার পর উসকানিমূলক পোস্ট দেয়ার অভিযোগে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিয়েছিলো সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় তিন প্ল্যাটফর্ম টুইটার,ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম। তবে হামলার ঘটনার ১২ ঘণ্টা পর দেশটির বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট ফিরিয়ে দিয়েছিলো মাইক্রো ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম টুইটার।

অ্যাকাউন্ট খুলে দিয়ে ট্রাম্পের প্রতি চূড়ান্ত সতর্কতা দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতিতে বলে, ‘‘ফের প্ল্যাটফর্মটির নীতি ভঙ্গ করলে তার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়া হবে।’’ এরপরও একই কাণ্ড ঘটালেন ট্র্রাম্প। আর তাই শেষ পর্যন্ত স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ করা হলো ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট। অর্থাৎ সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় তিন প্ল্যাটফর্ম টুইটার,ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম – তিনটিতেই নিষিদ্ধ ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দেয়ার পর টুইটার শুক্রবার (৮ জানুয়ারী) এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘সহিংসতায় উসকানি দেয়ার আশঙ্কায় এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।‘

মূলত: শুক্রবার বিকালে ট্রাম্পের করা দুটি টুইটের কারণেই তার অ্যাকাউন্ট বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। প্রথম টুইটে ট্রাম্প বলেন, “সাড়ে সাত কোটি মহান দেশপ্রেমিক আমেরিকান যারা আমাকে ভোট দিয়েছেন, আমি তাদের বলতে চাই, আমেরিকাই আমাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ …।“ দ্বিতীয় টুইটে ট্রাম্প বলেন, “আমি  জানাতে চাই আমি ২০ জানুয়ারির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করছিনা।“

এই দুটি টুইটের মাধ্যমে ট্রাম্প টুইটারের নীতিমালা লঙ্ঘন করেছেন জানিয়ে টুইটার জানায়, “এই দুটি টুইট বিশেষ ভাবে বিবেচনা করার মতো। বিশেষ করে টুইটারের মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বার্তা সব শ্রেণির মানুষের কাছে পৌঁছে যায়। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে এই অ্যাকাউন্ট থেকে মাধ্যমটির যেভাবে ব্যবহার করা হয়েছে তা অসমর্থনযোগ্য।“ উল্লেখ্য, ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্টের ফলোয়ার সংখ্যা ছিল আট কোটি ৮০ লাখ।

গত ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে হামলাকে সমর্থন দিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ‘‘আই লাভ ইউ’’ লিখে টুইট করেন ট্রাম্প। ঐদিন বেশ কিছু টুইট করেন ট্রাম্প যেখানে ক্যাপিটল হিলে হামলাকারীদের ‘দেশপ্রেমিক’ বলা হয়েছিল। সেদিন ১২ ঘন্টার জন্য সাময়িকভাবে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেছিলো টুইটার । কিন্তু ট্রাম্পের উস্কানিমূলক টুইট বন্ধ না হওয়ায় ৮ জানুয়ারী স্থায়ীভাবে ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হলো।

উল্লেখ্য, টুইটার ট্রাম্পের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করেছে। প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট এখনও সচল রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

Related posts

“এদেশে কোনদিনও মৌলবাদী নীতির ঠাঁই হবে না”

শাহাদাৎ আশরাফ

আজই কি পৃথিবীতে আছড়ে পড়ছে চীনা রকেট! আতঙ্কিত পুরো দুনিয়া

Mims tv : Powered by information

ইসি’র ৫০ বছর পূর্তি আগামী বছর

Irani Biswash

Leave a Comment

Translate »